Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes
ব্রেকিং:

এবারও স্বাস্থ্য সেবার মানে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

আজিজুর রহমান, কেশবপুর থেকে:
কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবারও সারা দেশের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবার মানে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে। এজন্য কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরষ্কার-২০১৮ অর্জন করেছে।
রবিবার বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের কনভেনশন সেন্টারে এই পুরষ্কার বিতরন করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এম.পি। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার গ্রহন করেন কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার শেখ আবু শাহীন। সোমবার সকালে কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হল রুমে এ বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে এক অবহিতকরণ সভা করা হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, যশোর সিভিল সার্জন ডাক্তার দিলীপ রায়। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেশবপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি আশরাফ-উজ-জামান খান। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার শেখ আবু শাহীন জানান, আমাদের হাসপাতালে কি কি সেবা প্রদান করা হয়, পরিস্কার-পরিছন্নতা, জনগনের বসার ব্যবস্থা, রোগিদের গাইড লাইন, রোগিদের সচেতন করাসহ বিভিন্ন কার্যক্রমের উপর প্রতি বছর স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার দেয়া হয়। বরাবরের মতো এবারও যশোরের চৌগাছা স্বাস্থ্য কমপেক্স প্রথম স্থান অধিকার করেছে। জেলা হাসপাতাল ক্যাটাগরিতে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল তৃতীয় হয়ে পুরস্কার প্রাপ্ত হয়েছে। আর সারা দেশের ভেতর জেলা পর্যায়ে যশোর সিভিল সার্জন অফিস দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। তিনি আরও জানান, এর আগে গত বছরও কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সারাদেশের মধ্যে দ্বিতীয় হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার-২০১৭ অর্জন করেছিল। এছাড়া ২০১৭ সালে বেসিক জরুরী প্রসূতি সেবায় খুলনা বিভাগে প্রথম হয়ে জাতীয় পুরষ্কার অর্জন করে কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান হতে সারা বছর সেবা সংক্রান্ত বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রদত্ত অনলাইন উপাত্তের মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বিবেচনায় প্রাথমিকভাবে সারাদেশের ৫১০ টি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৬৭ টির সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রস্তুত করা হয়। এর মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ছিল ৩৫টি। এরপর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও স্বাস্থ্য অধিধদপ্তরের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নিয়ে গঠিত টিম নভেম্বর ২০১৮ হতে জানুয়ারী ২০১৯ পর্যন্ত ওই সকল স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানেরর ১৮টি সেকশনে প্রদত্ত সেবার মান, পরিবেশ ও অন্যান্য বিষয় সম্পর্কিত চেকলিষ্ট অনুযায়ী সরেজমিন পরিদর্শন করে মূল্যায়ন করে নম্বর প্রদান করে। সরেজমিন মূল্যায়নে উক্ত টীম হাসপাতালের বহিঃবিভাগ ও অন্তঃবিভাগের সেবাপ্রাপ্তি বিষয়ে রোগীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করে নম্বর প্রদান করে। সর্বশেষে সকল মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বিশ্লেষণ করে ২৭ টি প্রতিষ্ঠানকে চুড়ান্তভাবে পুরষ্কারের জন্য নির্বাচিত করে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ক্যাটাগরিতে সারাদেশের শীর্ষ পাঁচের মধ্যে কেশবপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ৮৪.৫৯ শতাংশ নম্বর নিয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার ২০১৮’র জন্য নির্বাচিত হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল অফিসার আহসানুল মিজান রুমি, সাংবাদিক কেএম কবির হোসেন, শামসুর রহমান, দিলিপ মোদক, আজিজুর রহমান, এসআর সাঈদ, সিরাজুল ইসলাম, রমেশ দত্ত, আ.শ.ম. এহসানুল হোসেন তাইফুর, রাবেয়া ইকবালসহ সাংবাদিকবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*